Breaking News

Kolkata Street Foods



Kolkata Street Foods ( কলকাতা স্ট্রিট ফুড )

রাস্তার ধারে হোক কিংবা ঝাঁ-চকচকে রেস্তোঁরা -- খাদ্যরসিক বাঙালির জন্য শহর কলকাতা স্বর্গরাজ্য|  শহরের সেই অতি পরিচিত স্ট্রিট ফুড নিয়েই আজ বলবো আপনাদের|

কলেজ থেকে বেরিয়েই দেখুন সামনে সারি সারি ফুটের দোকান| নাক সিঁটকোবেন না ! ভীড় দেখলে তাজ্জব হয়ে যাবেন ! ‘এগ রোল" বা "চিকেন রোল’বলতেই ঝটপট ডিম্-চিকেন-পেঁয়াজ-লেবুর রস দিয়ে... চলে আসবে হাতে। অসাধারণ স্বাদ! একবার খেলে রোজ আসবেন|
অথবা অফিস থেকে বাড়ি ফেরার পথে এক প্লেট মোমো কিংবা তেলেভাজা...আহঃ রসনা তৃপ্তির জন্য আর কি চাই ! এহেন খাদ্যরসিকেরাই কিন্তু কলকাতার বিভিন্ন জায়গায় গজিয়ে ওঠা ‘রাস্তার খাবার দোকান’ গুলোর প্রধান পৃষ্ঠপোষক।



একটা সময় অবধি কিন্তু কলকাতার ‘স্ট্রিট ফুড’ বাদাম ভাজা, তেলেভাজা, ঝালমুড়ি, কুলফি বরফ, বাদামের চাক, মাংসের ঘুগনি, আলুর দম, চানাচুরেই সীমাবদ্ধ ছিল। পরে এলো - পেস্ট্রি, প্যাটিস, কেক বিক্রেতা। আজকে রাস্তার মোড়ে মোড়ে চাউমিন-চিলি চিকেন-মোমো|

** ধর্মতলার ডেকার্স লেন মানে এসপ্ল্যানেড পোস্ট অফিসের ডানদিকে সন্ধ্যেবেলা এসে দেখুন| চা, বাটার টোস্ট, ওমলেট থেকে শুরু করে লুচি, পরোটা, বিরিয়ানি, চাউ – সব পাবেন। পকেটে বেশি রেস্তো নেই? চিন্তা নেই| কলকাতার স্ট্রিটফুডের বৈশিষ্ট হল এতে পকেটে বিশেষ টান পড়ে না। রাস্তার খাওয়ারের দিক থেকে কলকাতার মতো সস্তা শহর আর একটিও নেই। এখানে এসে চিত্তদার বিখ্যাত কাটলেট খেতে ভুলবেন না।



** এবার আসুন পার্ক স্ট্রিট মেট্রো গেটের সামনে। বেরিয়েই দেখবেন টাটকা ফলের রস আর তার পিছনে সারি দিয়ে স্ট্রীটফুডের দোকান। ভিড় উপচে পড়ছে| ফুটপাথে ধাক্কা খেতে খেতে তন্দুরি রুটি, স্পেশ্যাল সব্জি বা রসালো জিলিপি খেয়ে দেখতে পারেন| এখানে একটা স্টলে কিন্তু চাট বানায় ফাটাফাটি। চেখে দেখুন ই না|

** এরপর চলুন বিবাদী বাগ আর ফেয়ারলি প্লেস-এ। রাস্তার এপাশ থেকে ওপাশ যেতে গিয়ে পা ফেলার জায়গা পাওয়া যাবে না এত রকমারি খাবারের স্টল|  ‘খিচুড়ি’, ‘দই চিঁড়ে’, ‘তালের রস’, ‘পাস্তা’, ‘বেলের সরবত’,‘রসবড়া’, ‘ম্যাগি’,'ধোসা', 'কুলচা', 'পাওভাজি', 'ধোকলা' কি নেই সেখানে !

** এইবার চলুন উল্টোডাঙা হাডকো পেরিয়ে ওই ফুটপাথে| লাইন দিয়ে সাজানো ভেলপুরি, ঝালমুড়ি, বাটাটাপুরি, পাপড়িচাট আরও কত কি! খেলে মুখে লেগে থাকবে|



** ফুচকার কথা বলি একটু এবার| কলকাতায় এত রকমের ফুচকা পাওয়া যায় যে একই খাওয়ারে এত রকম বৈচিত্র ভারতের আর কোনও শহরে দেখা যায় না -- কোথাও প্রচন্ড টক জল দেওয়া ফুচকা, কোথাও দই দেওয়া মিষ্টি ফুচকা, কোথাও ব্যবহার করা হয় গন্ধরাজ লেবু, কোথাও আলুভরা ফুচকা শুকনো দেওয়া হয় লাল চাটনির সঙ্গে। কলকাতায় এসে ফুচকা না খেলে জানবেন কিছু খাওয়া হলো না, তাই খেয়ে দেখুন|

** এছাড়া কলকাতার বিখ্যাত দোকানগুলি তো আছেই , যেমন ধরুন - মিত্র কাফের কবিরাজী, অ্যালেনের ঘিয়ে ভাজা প্রণ কাটলেট, নিজামের কাঠি রোল, দিলখুশের মাটন চপ, প্যারামাউন্টের সরবত, কালিকার তেলেভাজা, পুঁটিরামের রাধাবল্লভী, উজ্জ্বলার চানাচুর, গোলবাড়ির কষামাংস, অনাদির হাঁসের ডিমের মোগলাই, বিজলী গ্রীলের ফিশ ওরলি, নবীনচন্দ্র দাশের রসগোল্লা ধর্মতলায় কে.সি. দাসের পাশে ম্যাঙ্গো লস্যি, বড়বাজারে তেওয়ারির ঘিয়ে ভাজা সিঙারা আর বিবেকানন্দ রোডে স্বামীজির বাড়ির পিছনে গোলকের দোকানের মাছের কচুরি ইত্যাদি ইত্যাদি এবং ইত্যাদি। 



 তাই খিদে পেলে কলকাতায় রাস্তার ধারের দোকানে বসে, দাঁড়িয়ে আড্ডা সহযোগে পেট পূজো করা যায় নির্ভাবনায়। কলকাতার সঙ্গে এব্যাপারে ভারতের আর কোনও শহরের তুলনা চলে না।

No comments